ষোলই ডিসেম্বর ২০১৩

একাত্তুরের ষোলই ডিসেম্বর দেখেছি
চারিদিকে শুধু আনন্দ আর আনন্দ
কেউ নাচছে কেউ গাইছে
রাস্তাগুলো ছিল আনন্দের নদী
বইছেতো বইছে
হয়ত সাগরে যাবার জন্যে
হয়ত অসীম দিগন্তের দিকে
তখনও গুলির আওয়াজ
বাতাসে ভাসছে
হয়ত বাংগালীরা বিশৃংখল উন্মাদনায়
গুলি ছুড়ছে নিশানা বিহীন
হয়ত কোন পাঠান দারোয়ানকে
কুপিয়ে হত্যা করছে
যে জানেনা কি হয়েছে
যে জানেনা পাকিস্তান হেরে গেছে
যে বলছে‘হাম দোনো ভাই হ্যায়
হাম দুনো মুসলমান হ্যায়।
এর আগে নয় মাস
পাকিস্তান সেনারা
নিরীহ নিরস্ত্র মানুষকে হত্যা করেছে
হাজারে হাজারে লাখে লাখে
ঘরবাড়ি জ্বালিয়েছে
ইয়াহিয়া ভুট্টো বুঝতে পারেনি
হাজার মাইল দূরের ভাইয়ের
গায়ে হাত তুললে
ঘরে আগুন দিলে
সোমত্ত বোনকে লুট করলে
শাক্তিশালী প্রতিবেশী কি করতে পারে।
প্রতিবেশী বহু বছর ধরেই
অপেক্ষায় ছিল
তেমন একটি সুযোগের জন্যে
অনেক অপেক্ষার পর
মোক্ষম সুযোগ ও সময় এসে গেলো
এমন সুযোগ কেইবা হারায় বলো
ভাইয়ে ভাইয়ে যুদ্ধ করলেই এমন হয়
ষোলই ডিসেম্বর রমনার ময়দানে
পরাজয়ের দলিল স্বাক্ষরিত হলো
বিজয়ী অরোরা
বিজিত নিয়াজী
প্রতিবেশী গর্বভরে গর্জে উঠলো
বললো,‘হাজার সালকা বদলা লিয়া’ ।
আর আমরা আলাদা জমিন
ঘরবাড়ি দুয়ার পেলাম
আমরা স্বাধীন হলাম
প্রতিবেশী ন্যায্য কথা
আমিতো আমার হক পেলাম না
ষোলই ডিসেম্বর
দুই হাজার তেরো সাল
তোমন কোনো আনন্দ মিছিল নেই
কোথাও শহর বন্দর
নগরে নগরে।
এই ষোলই ডিসেম্বরে
চারিদিকে মৃত্যুর খবর
শুধু লাশের খবর
ঘরবাড়ি হাট বাজার দোকানপাট
সবখানে শুধু আগুন আর আগুন
জানিনা কেন এমন হলো
একাত্তুরের নয় মাস কি
আবার ফিরে এসেছে
কিন্তু কেন ?
কিসের দ্বন্ধ
পক্ষ কে আর প্রতিপক্ষইবা কে
একাত্তুরে শ্লোগান ছিল স্বাধীনতা চাই
হে বাংগালীরা
দুই হাজার তেরো সালে
তোমাদের কি শ্লোগান এবার
এখনতো তুমি আর তোমার
প্রতিবেশী ছাড়া
আর কেউ কাছে নেই
বলো বলো
স্পষ্ট করে বলো
এবার তোমার শত্রু কে
তেরোর ষোলই ডিসেম্বরে
আমি মিছিলে যাইনি
শ্লোগান দিইনি
আমিতো কোথাও আমার
প্রিয় মাতৃভুমিকে দেখতে পাচ্ছিনা।