আমি অভিশাপ দিচ্ছি

আমি অভিশাপ দিচ্ছি সেই মুখোশ পরা বন্ধুকে
যে একাত্তুরে আমাদের সাহায্য করেছিল
তার শত্রুকে পরাজিত করার জন্যে।
আমি অভিশাপ দিচ্ছি সেই বন্ধুকে
যার মুখোশ খুলে পড়েছে দুই হাজার তেরোতে
আমি আমার সমস্ত শক্তি দিয়ে ঘৃণা প্রকাশ করছি
তাদের জন্যে যারা লাল সবুজের পাতাকে
চিরতরে নামিয়ে দিতে চায়।
আমি অভিশাপ দিচ্ছি
মুখোশ পরা বন্ধুর বেশে নতুন শত্রুকে
যে একাত্তুরে নিজের শত্রুকে খতম করার জন্যে
আমাদের পরম মিত্র সেজেছিল
তেতাল্লিশ বছরেও আমরা চিনতে পারিনি
আমরা বাপদাদাদের সাবধান বাণীও
ভুলেছিলাম এতকাল
এখনও হাজারও বিভ্রান্তি আমাদের ভিতর
এখনও চিনতে পারিনা
এমন শত্রুকে যে শুধুই বন্ধু সেজে থাকে
মহামিত্রের মতো কথা বলে।
আমি অভিশাপ দিচ্ছি
লাল সবুজের শত্রুকে
যে শত্রু আমাদের পতাকাটাকে
প্রায় গিলে ফেলেছে
এমন চলতে থাকলে
বন্ধু বেশের চিরশত্রু
আমার আর যোল কোটি মানুষের
মানচিত্রটাকে হরিণ শাবকের মতো গিলে খাবে।
হে বাংলার যোল কোটি মানুষ
তোমরা চোখ কান মেলো
মুক ও বধির হয়োনা
সজাগ হয়ে চারিদিকে চেয়ে দেখো
কে শত্রু আর কে মিত্র
কে তামার পতাকার শত্রু
কে তোমার জাতিসত্তার শত্রু
কে তোমার মানচিত্রের শত্রু
যদি চিনতে না পারা
তুমি পরাধীন হবে চিরতরে
বলো সবাই আকাশে বাতাসে
কঠিন বজ্রকণ্ঠে আওয়াজ তুলে
আমরা তোমাকে অভিশাপ দিচ্ছি
এবার আমরা তোমার বিষদাঁত ভেংগে দেবো।
বলো সবাই বজ্রকণ্ঠে
বাংলার মীরজাফরেরা আর রেহাই পাবেনা
আমরা চিনতে পেরেছি
আমাদের শত্রু কে
আর মিত্র কে
আমরা তোমাদের অভিশাপ দিচ্ছি
আমরা বাংলাদেশের শত্রুদের
অভিশাপ দিচ্ছি।