মনসুর আমার গুরু

মানসুরকে হয়ত সবাই চিনে
হয়ত চিনেনা
জগতের শ্রেষ্ঠতম খোদা প্রেমিক মনসুর
আর প্রেমের কারণেই
মনসুরের জীবন গেছে
খলিফার আদালতে।
মনসুর হাল্লাজ নামেও
অনেক বেশী পরি্চিত
মনসুর একজন শ্রেষ্ঠ কবি
খোদার প্রেমেই কবিতা লিখতো
এমন প্রেম জগতে কেউ কখনও করেনি
খলিফা ফকিহ ধর্মগুরুরা বুঝতে পারেনি
আসলেই মনসুর কি বলেছে
বলা বাক্যের কী গুঢ রহস্য
কেনইবা আইন আদালত
এমন প্রেমিকের প্রাণ হরণ করে নিলো
আমি মনসুরের একজন ভক্ত
আমি মনসুরকে ভালবাসি সীমাহীন
ভালবাসি মনসুরের কবিতা
শরীয়তী মোল্লারা
মনসুরকে চিনতে পারেনি
বুঝতেও পারেনি।
মনসুরের জিকির ছিল
‘আনা আল হক’
আমিই সত্য
খোদাতো নিজেই বলেছেন
যে আমার হয়ে গেছে
আমি তার হয়ে গেছি
আশেকের হাত পা মুখ
সবই আমার ।
খোদার এমন কথা জেনেও তারা জানেনি
কখন তারা এসব জানবে
তা শুধু খোদাই জানেন
আমিতো মনসুরের মতো পবিত্র নই
আমার শরীর ও মনে
পাপের অনেক দাগ
তবুও আমি খোদাকে ভালবাসি
না পাওয়া আর না দেখার বেদনায়
আমারও মনে হয় এই বুঝি
খোদা আমাকে ছেড়ে চলে যাবে
আর এক বিন্দুও সময় নেই
অতি আপনজনদের বলি
আমায় শেষ যাত্রার পোষাক পরিয়ে দাও
যাকে ভালবেসে
তোমাদের সবার নিন্দার কাঁটায়
রক্তাক্ত হয়েছি রাতের পর রাত
দিনের পর দিন
তার ডাক এসে গেছে
এবার আমার যাবার সময় হলো
মাত্র ক’দিনের জন্যে আমি
তোমাদের সাথে তোমাদের হয়ে ছিলাম
এবার মাটির খাঁচাটা
তোমাদের দিয়ে যাবো
যদিও আমি মনসুর নই
অমন প্রেমিকও আমি নই
দেশের আদালতে আমার ফাঁসী হবেনা
তবুও সবাইকে বলছি
আমি খোদার পাগল
হাজারও পাথর খেয়ে
দেহমন রক্তাক্ত হলেও বলবো
মনসুর আমার গুরু
আমার ভিতর খোদা থাকে
আমিও থাকি তার ভিতর
খোদা মহাসত্য
আমি সেই সত্যের দাস।