কাকে তুমি ভালবাস

কেন পাঠালে আমাকে এখানে
বলো ,শুধু একবার বলো
কি কাজ এখানে আমার
বছরের পর বছর
যুগের পর যুগ
আমি নাদান অজ্ঞ জ্ঞানহীন হয়ে
পড়ে আছি এই অজানা অচেনা বিভুঁয়ে
তোমাকে ফেলে
তোমার ক্ষমতা অসীম জানি আমি
তুমি ভাবলেই সব হয়ে যায়
কোন ইংগিত কোন শব্দ ছাড়াই
এসব আমি ভাল করেই
তবুও মন মানেনা
কিছুতেই মানেনা
কি ইচ্ছা ছিলো তোমার মনে।
আমি বড়ই লাচার অতি দূর্বল চিত্তের
অভাগা আদম সন্তান।
এখানে কত শত কোটি মানুষ
তবুও আমি বড়ই একা
আমার মনে কি হয় তা শুধু
তুমিই জানো
হাজারো মানুষের ভিড়ে
কেন আমি এমন একা
এমন মায়াবী জগত
কেন এ মনে জাগায় না দোলা
কোন দোলা
কোন বাদ্য বাজে দিন যামিনী
এই মরুময় জীবনে
কি সেই এমন টান যা আমায়
টেনে নিয়ে যায় সীমানার বাইরে
কে আকাশ থেকে ডেকে কয়
সীমানার বন্ধন চুরমার করে
ফিরে আয় আপন ঠিকানায়
কার ডাক বাজে রাত দিন
এই নাদানের কানে
একী তোমার ডাক
না তোমার কোন দূত
বা ফেরেশতার ডাক।
এত অপবিত্র আমাকে
কে ডাকে কেন ডাকে
সেতো শুধু তুমিই জানো
আমিতো যেতে চাই
এ মায়াবী লোভাতুর চালবাজ
দুনিয়া ছেড়ে
সকল বন্ধন ছেড়ে
আমার ইচ্ছায়তো কিছুই হয়না
সে তুমি ভালোই জানো
আমিতো ভালেই ছিলাম
মহা আলোময় নুরের জগতে
তুমিই পাঠিয়ে দিলে নিজের ইচ্ছায়
এ মহা অন্ধকার ময়
উলংগ জগতে
নিজের ইচ্ছায়
মহা এ সৃষ্টিতে তোমার ইচ্ছায়ইতো
একমাত্র ইচ্ছা
নিজের ইচ্ছা পুরণেই তুমি
আমাকে বিচ্ছিন্ন করেছো আলো থেকে
মাটির এ জগত যে ভাল নয়
তুমি জানো আমার চেয়ে ঢের বেশী
তবুও পাঠিয়েছো
কি যেন এক পরীক্ষার লাগি
এমন পরীক্ষা কেন রেখেছো তুমি
এই দুর্বল নাদান বান্দাহর লাগি।
অথচ তুমিই সকল ফেরেশতার
প্রতিবাদের মুখে
আমায় পাঠিয়ে দিলে
জীবন নামের কারগার দিয়ে
ভালবাসা হীন মাটির ঘরে
সাথে দিলে এক মহা শয়তানকে
আমার পিছে লেলিয়ে
আমি বুঝতে পারিনা
তুমি কি ভালবাস
অভিশপ্ত শয়তানকে
না আমাকে।