আমার দেশটাই আজ কারাগার

হে জগতবাসী,
আমি বাংলাদেশ থেকে বলছি
আমি একজন কবি
আমার চিত্‍কার
আমার আওয়াজ
তোমরা শুনতে কি পাও?
শবুজ শ্যামল বাংলার ফসলের মাঠ
হেমন্তের সোনালী ধান
সব আজ লালে লাল
এখানে হাটে মাঠে ঘাটে মানুষের লাশ।
টিভি রেডিও খবরের কাগজ
অনলাইন তরুণ পত্রিকা
ফেসবুক টুইটারে
কতটুকু খবর আর তোমরা পাও
এখানে ঘর পুড়ছে
রেল পুড়ছে
বাস পুড়ছে
পুড়ছে নরনারী শিশু আবাল বৃদ্ধ
এর কতটুকে তোমরা
দেখতে বা শুনতে পাও?
এখানে ধনীরা কাগজ কলম
রেডিও টিভি,পত্রিকা
স্কুল কলেজ কিনে নিয়েছে
ওরা জমি খায়
দালান খায়
বড় বড় ইমারত খায়
ওরা রাজনীতিকে পকেটে রাখে
নেতারা ওদের পকেটে থাকে।
এখানে তরুণের
গাঁজা ভাং নেশা করে বুঁদ হয়ে থাকে
ওরা রাত হলে
মধুশালায় পড়ে থাকে
দিন হলে ধনীদের কোলে শুয়ে থাকে
বড় বড় কিতাব পড়ে
বিপ্লবের আর্ট ফিল্ম দেখে
ওরা নাকি সুশীল হবে
জীবনে লক্ষ্য
তাদের বাবারাও আছে তাই।
এখানে ফেরাউন নমরুদের
আসন পেতেছে
গণতন্ত্রের নামে,মানবতার নামে
ওরা বলে মানুষ কিছুই না
দেশও তেমন কিছুনা
সংবিধান বাঁচলেই মানুষ বাঁচবে
দেশ বাঁচবে
পতাকা বাঁচবে
জাতীয় সংগীত বাঁচবে।
হে জগতবাসী
আমরা নমরুদ ফরাউনের কবলে পড়েছি
আমাদের পাশেই আছে
রাম রাবনের বংশধর
কে বাঁচাবে আমাদের
আমিতো কবি
মনের কথা খুলে বলি
মজলুমের কথা বলি
জালেমের বিরুদ্ধে
জগতে হাজার কবি আছে
যারা জালেমের কারাগারে আছে
আমি নিজেই কয়েদীর পোষাক পরে নিয়েছি
আর নিজের খাই
যদি পাই
আমার দেশটাই আজ কারাগার।