একটি পেয়ালার ঠোঁট

রাত নীরবতা পাহাড় আর সমুদ্রকে
আমি ভলাবাসি
যদি সাথে থাকে
একটি পেয়ালার ঠোঁট
আর তুমি।
তোমার সংগ
আর নির্জনতা
আমায় কবি হতে বাধ্য করে
পৃথিবীর শেষ গভীরতা থেকে
ভাবনা জেগে উঠে
আর চুপি চুপি বলে
তুই খোদা হয়ে যা
আমি হয়ে গেলাম
মনসুর হাল্লাজ।
কতল হওয়াই ছিল
আমার ফিতরাত।
হে বন্ধুগণ
আমি জানি
তোমাদের কোন
শুদ্ধতা নেই
তাই আমাকেই
খোদা মেনে নিয়েছো।

Advertisements

স্মৃতি থেকে মুক্তি নেই

ইচ্ছা করলেই তুমি নিজেকে বিচ্ছিন্ন
করতে পারবেনা
তোমার স্মৃতি থেকে।
আমার কথা মনে পড়বে
যতদিন বেঁচে থাকো
জানি দৃশ্যমান সবকিছু তুমি
মুছে ফেলেছো
এখন স্মৃতির বিরুদ্ধে লড়াই করছো
মরণ ছাড়া এ বিজয় তোমার
কখনই হবেনা।
আমাকে তুমি ভাববেই
রাত গভীর হলে
অন্ধকারের রং আরও
বেশী হলেই
আমি হাজির হই
তোমার দেহ মনে
আর ভাবো কোনটা সত্যি।
এভাবেই তুমি আমাকে বয়ে নিয়ে
যাবে চির অন্ধকার ঘরে।

কামুক রোদ

কামুক রোদ তোমার ঠোটে চুমো খাচ্ছে
দু’হাত বাড়িয়ে তোমাকে জড়িয়ে ধরেছে
খোলা আকাশের ভয়ে তুমি বসন খোলনি
আমিতো ছিলাম তোমার পাশর বারান্দায়।

টবের ফুল গুলো আনত নয়নে
তোমাদের কেলি দেখছে
পাশেই গাছের ডালে কুকিল প্রিয়ার শোকে
ডেকেই যাচ্ছে
হয়ত তার প্রিয়া তোমার মতোই
সারা অংগে রোদের ঘরে
শুয়ে আছে।

গোলাপের সুবাস পেয়ে আমিও
বারান্দায় গেলাম
আমাকে দেখেই তুমি চলে গেলে আড়ালে
আমার অপরাধ ছিল
আমি শুধুই মানুষ।

ভয় নাই

ভয় দেখিয়ে কী লাভ
আমিতো কোন পদ পদবী চাইনা
ভয় দেখিয়ে বাধ্য করা যাবেনা
আমিতো স্বর্গের পথ হারিয়ে ফেলেছি।
সিঁড়ি গুণতে পারিনা বলে
নীচেই পড়ে আছি
উঠতে গেলেই লাঠি লাগে
সে লাঠি আমার নেই।
শরম আমাকে ছেড়ে চলে গেছে
বহুকাল আগে
তাই উদোম শরীরে নৃত্য করি
মান্যজনের সামনে
আমার ভয় নাই
আমার শরম নাই
আমার পদবী নাই
ঈস্বরও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে

অজানা অপেক্ষায়

আমিতো আছি বসে
বহুকাল বহুবছর বহুদিন
সকাল সন্ধ্যা দুপুর।
জানি তুমি একদিন আসবে
হুট করে
কিছুই জানান না দিয়ে।
সেই যে কখন বলেছো
আসবে একদিন
আর আমি অপেক্ষায় আছে
জানি তুমি আসবেই
আর কতকাল
আমায় এমন অপেক্ষায় রাখবে
এখানে এসেই আমি
তোমার অপেক্ষায় আছি
জানি হুট করে একদিন
আসবেই চলে
সে রাত হোক
আর দিন হোক
ভোর হোক
বা ডুবো ডুবো সন্ধ্যা হোক
প্রিয়তম শুধু জানিনা
তুমি কখন আসবে
আর পথ চেয়ে আমার
কতকাল কাটবে।

একজন পাগল কবি

আমি কেমন করে কবি হবো

বন্ধু আর সমালোচকরা বলে

আমার নাকি মাথায় ঝোঁক আছে।

আমিতো জানিনা

কেমন করে খোদার প্রশংসা করতে হয়

তিনিইতো আমাকে শিক্ষা দেননি

প্রশংসার ভাষা আর

আরামদায়ক শব্দ।

আমিতো আমার অদৃশ্য খোদাকেই

ভয় করিনা

আমিতো শিখিনি ভয় করা

কাকে বলে।

আমিতো পুরস্কার আর ফুলের মালায়

বিশ্বাস করিনা

আমি হাতকড়া আর শাস্তিতেই

আমার আস্থা বেশী।

আমিতো আর পদক প্রাপ্ত কবি

হতে পারিনা

আমিতো উলংগ অসম্মানিত

জনতার কবি।

 

 

  • দিনপন্জী

  • খোঁজ করুন