হোয়াট মাস্ট বি সেইড / গুন্টার গ্রাস

যা অবশ্যই বলতে হবে     / গুন্টার গ্রাস

আমি কেন নীরব হয়ে আছি

কেন গোপন করে রেখেছি

যুদ্ধ যুদ্ধ খেলার রহস্য

আর আমরা বেঁচে আছি

যুদ্ধের পাদটীকা হয়ে।

বলা হচ্ছে  ইরাণী জনগণকে

নিশ্চিন্ন করার জন্যে শুধু

তাদেরই অধিকার আছে

প্রথম আঘাত করার জন্যে।

শক্তি দিয়ে তাদের পদানত করার জন্যে

তারপরে আনন্দ মিছিল করা

সবই তারা করতে পারে

কারণ তাদের ক্ষমতা আছে।

সন্দেহ হচ্ছে  তাদের কাছে

আনবিক বোমা  আছে

তবুও আমি কেন ওদের নাম

বলতে নিজেকে নিষিদ্ধ করে রেখেছি।

যাদের কাছে আনবিক বোমা আছে

তাদের নামও কেউ বলছেনা

তাদের ওখানে কোন পরিদর্শক

কখনও যায়না।

একথাটি একটি সার্বজনীন সত্য

আমার নীরবতাও এ মিথ্যাকে সমর্থন দিয়ে গেছে

এটা একটি অপরাধ ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ

সকল অত্যাচারকে সমর্থন জানিয়েছে।

আমার নিজদেশও সেমেটিকদের বিরুদ্ধে

কাজ করে গেছে

বার বার এই অপরাধে আমার দেশও দোষী

যতবার এই অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে

আমার দেশ তাতে সমর্থন দিয়ে আসছে

ইজরায়েল তার যুদ্ধাস্ত্র গুলো সেইদিকে তাক করে আছে

যেখানে আনবিক বোমার কোন নিশানা নেই

এক্ষেত্রে একমাত্র প্রমান ভয় ও অবিশ্বাস

আমি তাই বলছি

যা অবশ্যই বলা দরকার

কিন্তু আমি এতদিন চুপ ছিলাম কেন?

মনে হয় আমি আমার অরিজিনের কথা ভেবেই

যেখানে রক্তের দাগ এখনও মুছে যায়নি

এ সত্য কথাটি বলতে

আমাকে কে  নিষেধ করেছিল

ইজরায়েলকে অবশ্যই সত্যকথা

গুলো বলা দরকার

যেখানে আমার বন্ধন রয়েছে

এ বন্ধন আগামীতেও জারী থাকবে।

কিন্তু এখন আমি এ কথা গুলো বলছি কেন

আমারতো সময়ও শেষ হয়েছে

কালিরও আছে শেষ বিন্দু

আমি বলবো বিশ্ব শান্তির প্রধানতম বাধা

আনবিক শক্তিধর ইজরায়েল

আমাকে আজই এ সত্যটা বলতে হবে

বলার জন্যে আগামী কালও বেশ দেরী হয়ে যেতে পারে

আমরা জার্মানদের অপরাধের বোঝা বেড়েই চলেছে

আমি দেখতে পাচ্ছি আমাদের দেশ আবারও

অপরাধের সাথে হাত মিলাতে চলেছে

আমি এটা নিশ্চিত।

তাই আমি আর চুপ থাকতে পারিনা

পশ্চিমের ভন্ডামীতে আমি ক্লান্ত হয়ে পড়েছি

আমি আশা করছি এবার সবার নীরবতা ভাংবে

অনেকেই মুক্তি পাবে নীরবতার অপরাধ থেকে।

আমি অপরাধী ও শান্তির শত্রুদের কাছে

আকুল আবেদন করছি

তোমরা সন্ত্রাসকে পরিহার করো

আমি আরও দাবী করছি

ইজরায়েলের আনবিক ক্ষমতাকে নিয়ন্ত্রন করার জন্যে

ইরাণ ইজরায়েলের আনবিক ক্ষমতার

পরীক্ষা হোক আন্তর্জতিক ভাবে

যাতে দুদেশেরই সম্মতি থাকবে।

(বিশ্বখ্যাত জার্মান কবি গুন্টার গ্রাসের এই কবিতাটি  জগতজোড়া আলোড়ন সৃস্টি করেছে।

সর্বত্র তোলপাড় শুরু হয়েছে।  কবি এরশাদ মজুমদার এই কবিতার একাংশে ভাবানুবাদ

করেছেন।)

Advertisements

এখানে আপনার মন্তব্য রেখে যান

কোন মন্তব্য নেই এখনও

Comments RSS TrackBack Identifier URI

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

  • দিনপন্জী

  • খোঁজ করুন