প্রজন্ম

বাপদাদারা কেমন ছিলেন সে জানায় আমাদের কাজ নেই

পুরণো দিন মানেইতো পুরণোর মাঝে ফিরে যাওয়া

বিজ্ঞান ছেড়ে দিয়ে পড়ে থাকতে হবে ঠাকুমার ঝুলির গল্প নিয়ে

তেমন জীবনে আমরাতো আর ফিরে যেতে পারিনা কিছুতেই।

বাপদাদাদের জীবন মানে কুপিবাতি আলোহীন অন্ধকার জগত

শুনেছি সে সময়ে নাকি চারিদিকে ভুত প্রতেরা ঘরতো আপন মনে

তাঁরা সবাই নাকি চিড়েমুড়ি নিয়ে  এক ঘন্টার পথ তিন দিনে পার হতেন

গরুর গাড়ী নৌকো আর পায়ে হাটা দিয়েই তাঁরা চলতেন এখানে ওখানে।

কথায় কথায় তাঁদের ব্যারাম হতো আর মরে যেতেন বিনা চিকিত্‍সায়

রেডিওর খবরও সহজে কেউ করতোনা বিশ্বাস যতই সত্য হোক

বাড়ি ভর্তি মেহমান, রাতদিন পাক ঘরে আগুন চারিদিকে কিলবিল

ধানের গোলা, ধানের মাড়াই, চার হলোর বলদ, পুকুর ভরা মাছ।

এসবতো শুধুই গল্পর কথা, কেউ কখনও দেখিনি জীবনে তাদের

আমরা নতুন যুগের মানুষ, কোন আগ্রহ নেই ওসব বানানো গল্পে

আমরা নতুন জেনারেশন, গুগল ফেসবুক আর টুইটারে মুখ ডুবে থাকি

সকাল সন্ধ্যা সিরিয়াল দেখি হিন্দী অথবা ইংরেজী, বাংলিসে কথা বলি।

পুরণো দিনে আমাদের কোন আগ্রহ নেই , নেই এক বিন্দু আবেগ বা ইমোশন

তাঁরা কবরে আছেন ভালই আছেন, আমাদের থাকতে দিন প্রিয়তম নতুনদিনে

বাপদাদা মানেই অতীতে ফিরে যাওয়া, অতীতে মুখ লুকিয়ে বর্তমানকে অস্বীকার করা।

মন্তব্য দিন

কোন মন্তব্য নেই এখনও

Comments RSS TrackBack Identifier URI

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s