ভয় আর কখনও কাটলোনা

সত্যিই খুব ভয়ে ভয়ে থাকি তোমাকে নিয়ে

যখন ছিলে এক তাল মাংশপিন্ডের মতো

ভেবে মরতাম কেমন করে বড় করবো

যখন আরেকটু বড় হয়ে সারা বাড়ি ঘুর ঘুর করছো।

তখন ভেবে ভেবে দিন কাটতো কখন পড়ে যাবে

দিন যায় রাত কাটে আমার ভয় আর কাটেনা

মনে হতো কখন কোথাও যেন হারিয়ে যাবে

ভাবতাম শুধু কখন বড় হবে আর আমার ভয় কেটে যাবে।

আমার ভয় ভয়  দিন আর রাত পেরিয়ে একদিন

তুমি বড় হয়ে গেলে আর এক সময় আমার বন্ধু হয়ে গেলে

আমি ভাবলাম আমার ভয়ে কাটার দিন বুঝি শেষ হলো

না, আমার ভয়ের দিন আজও শেষ হলোনা

একদিন তুমি  নিশ্চিত ফিরবে বলে বিদেশে চলে গেলে।

সে ফিরা আর হলোনা তোমার, আমারও ভয় কাটলোনা

এখন আমি একেবারেই একা, সময় কখনই কাটতে চায়না

রোজই বসে থাকি ফোনটার কাছে যদি তোমার ফোন আসে

ফোন আর আসেনা, আমি একা দিন রাত, একা চারিদিকে

আমার সাথে থাকে বৃস্টিভেজা মেঘে ভরা একাকী আকাশ।

Advertisements

এবার ডেকে নাও তোমার এই পাগলকে

দিনমান ঘুরে ঘুরে শব্দের মালা তৈরী করি

রাত গভীর হলে সবকিছু নিশুতি হলে নীরবে নির্জনে

বলবো যখন ‘আমি তোমায় ভালবাসি’

তখনি কোথা থেকে যেন ভেসে ভেসে আসে তোমার নাম

সারা ঘর আমার তোমার সৌরভে ভরে উঠে

সেই সৌরভে আমি ডুবে থাকি

সেই সৌরভে কোথা থেকে ভেসে আসে হাজারো শব্দমালা

শুধু আওয়াজ উঠে চারিদিক থেকে

ভালবাসো আরও ভালবাসো, আরও ভালবাসো

দিন পেরিয়ে রাত এলেই গভীর হলে নির্জন হলে

আমি আসবো, আসবোই আমি নিশ্চিত জেনো

তুমি শুধু বলবে, আমি তোমায় ভালবাসি

জীবন ও জগতকে ত্যাগ করে শুধু তোমার হবো

আমাকে আশেক করো, আমাকে আশেক করো

হে প্রিয়তম, হে আমার মাশুক তুমি ছাড়া

আমার আর কেইবা আছে আর

তুমিতো আমায় সর্বহারা করে মজনু করেছো

জগত সংসার আমাকে বিতাড়িত করেছে

দিনমান পাথর বৃস্টি রক্তাক্ত এই শরীরে

তবুও কি তুমি ডাকবেনা  পরিত্যক্ত তোমার পাগলকে।

আমাকে শব্দ দাও আমি তোমাকে ডাকবো

আমার জিহবাকে শক্তিশালী করো

আমি যেন শুধু তোমার কথা বলি

আমার শব্দ গুলোকে আরও সুন্দর করো

আমি যেন সঠিক শব্দে তোমার সাথে থাকতে পারি

আমার মনকে আরও শক্তিশালী করো

আমি যেন এই দুনিয়ার চোখকে ভয় না করি

আমাকে তুমি আরও বেশী করে ইনসানিয়াত দাও

আমি যেন মজলুমের পক্ষে লড়াই করতে পারি

জালেমকে  ধ্বংস করার দেহ ও মন দাও

তোমার জগতটাকে আমি মানুষের বাসযোগ্য করতে চাই।

তুমি আমি দুজনে মিলে

কি আর আমার হাতে আছে ধরে দেখে স্মৃতি দুয়ার খুলে দিতে

কিছু ছবি কিছু হাতের লেখা,হয়তবা পুরাণো কিছু জামা কাপড়

কি আছে আমার কাছে বুকে জড়িয়ে ধরতে তোমার  কথা মনে করে

এমনি করেই পুরাণো জিনিষ পত্র যা এখনও ফেলে দেয়া হয়নি

তাই আমি নিত্যদিন বুকে রাখি তসবীর দানার মতো।

যে কথা তুমি আমাকে হাজার বার প্রশ্ন করেছো জানার জন্যে

আমি তা বলেছি তোমায় হাজার বার মমতা ভরে স্নেহ দিয়ে

প্রতিবারেই  হেসেছি আমি তোমার কপালে চুমো খেয়ে  জড়িয়ে ধরে

আমারও এখন জানতে ইচ্ছা করে এটা কি ওটা কি, কেন সব এ রকম হয়

আমার ও ইচ্ছে হয় তুমি আমাকে জড়িয়ে ধরো, কপালে চুমো খাও

আমারও জানতে ইচ্ছা করে সূর্যটা প্রতিদিন উঠে আর ডুবে কেন

প্রিয় পৃথিবীটা সত্যিই কি দিনরাত ঘুর ঘুর করে ঘুরেই চলেছে

স্মৃতির দরোজা খুলে কাউকে না জানিয়ে হুট করে চলে যাই গ্রামের পুকুর পাড়ে

কই সেখানেতো মাছরাংগা পাখিটা আর খেলা করেনা

জলের টোলে চুমো খায়না ঝুঁকে থাকা গাছের পাতা

চালতা আর আম গাছটা এখন আর নেই, নেই সেই নরোম বেত বন

আসলে কি জানো একটি পুকুরও আর নেই, নেই কোন মাছের ঘাই

আমি জানি এখন তুমি ভাবছো নতুন কোন গ্রহের কথা

যেখানে অনেক সূর্য আছে, যেখানে কোন রাত নেই দিনও নেই

যেখানে কোন স্বপ্ন নেই, নেই কোন রামধনু  সাত রংগা মায়াবী পাখি

আসো বাবা এখনি আসো, আর দেরী হলে খুব বেশী দেরী হয়ে যাবে

তুমি আর আমি আমরা দুজনে মিলে ফিরে যাবো সেই পুরাণো দিনে

পুরাণো পার্কের সেই পুরাণো বেঞ্চিতে বসে দুজন দুজনকে জড়িয়ে ধরে

কিছুটা সময় পার করে দিই পুরাণো স্মৃতির ছেঁড়া ফাড়া পাতায় চোখ রেখে

কিছুটা যত্ন করে তুলে আনি দুজনে মিলে বুকের গভীর থেকে।

সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১১ সকাল বেলা

আয়রে আয় ফিরে আয়

তোমাদের কথা ভেবে ভেবে আমার দিন  আর রাত কাটে

আমার লাল নীল স্বপ্ন গুলো  ধুসর হয়  মন চুরির হাটে

তোমাদের দেখবো বলে আমার চোখ দুটো কেমন আবছা হয়ে গেছে

সূর্য ডুবো ডুবো হাট গুলো  লোক শূন্য এমনি বেলা শেষে।

সেই যে কখন তোমরা আমায় ছেড়ে চলে গেলে এখন আর মনে নেই

কেন গিয়েছো কোথায় গিয়েছো  এসব খবর কোথায় গেলে পাই

কেন যে এমন হয়  আজও কেউ বলেনি আমায় পড়ন্ত বেলায়

এখন ঝাপসা চোখ ঝাপসা স্মৃতি ,মনে হয়  জীবনের এই অবেলায়

যখনি ডাকি আমি বুকের ধন মানিক আয়রে আয় ফিরে আয়

সাগর মহাসাগর শব্দ গুলো  প্রতিধ্বনি করে ফিরিয়ে দেয় আমায়

সে সব শব্দ বুকে নিয়ে জড়িয়ে ধরে আমি এখন ঘুমিয়ে থাকি

লাল নীল স্বপ্নের ভিতর তোমাদের আসল ছবি আঁকি।

বেদনাই আমার খোদা

বেদনা গুলোকে তসবীর দানা করে করে

সূতোয় বেঁধে নিয়েছি

এখন বেদনাই আমার  প্রভু

আমি তারই জিকির করি

সকাল বিকাল দুপুর রাত্রি।

বেদনা এখন প্রেয়সী আমার

বুকের ভিতর একতারা সুর

সেই সুরেই পথ দেখে চলি

অচিন পথে একা একা আমি বহুদূর।

হাল্লাজ আমায় ডেকে ডেকে কয়

কোথায় যাবি কেনইবা যাবি

এ পথের কোন শেষ নাই

তুইও আমার মত রক্ত দে

রক্তের সাগরে ডুবে ডুবে

মাসুকের নামে জিকির কর।

আয় কাছে আয়, যা চাস সবি পাবি

যেমন পেয়েছি আমি প্রাণের বিনিময়ে

আমি তোর বেদনার গোলাপ

রুমীর মসনবী।

কতল হলেই দেখতে পাবি

যা দেখতে চেয়েছিস  এতকাল।

Sayings

1. He who knows himself

knows ALLAH — Prophet Mohammad(S)

2. Man is my secret

and I am his secret. Allah says

3. If you foget your soul

You fotget God. Allah Says.

4. Behold, the kingdom is within you. Prophet Jesus

5. Oh Lord, show me things

as they really are, Prophet says

6. Realize God

Just not believe. Prophet says.