হাইকু ১

                     ১।তুমি মাশুক, আমি আশেক
                       তুমি আদালত
                       আমি আসামী।
                  

                    ২। আমি আচার, বয়ামে তুলে রাখো
                       সময় হলে
                       চুষে চুষে খাও।
                    ৩। ঈশ্বরের সাথে ছিলাম বহুকাল
                       তারপর মানুষ হলাম
                       সেই থেকে জ্বলছি বিরহে।
                     ৪। কিষাণী বালিকার
                       হাত খসখসে
                       ঠোট টসটসে
                       হাত নেবে না ঠোট নেবে।
                    ৫। শরীর জবুথবু
                       পোষাকের বাহার
                       রূপ শুধু চোখের আহার।
                   

                   ৬। দেয়াল পাহারাদার
                       দরজায় খিল
                       উদোম শরীর
                       দেখছো বারবার।
                     ৭। কবিরা মরে যায়
                        কবিতা অমর
                        হাজার বছর পর
                        পড়ে ঘর ঘর।
                     ৮। মত্‍স্য কন্যা সরাইখানা
                        কবিকুলের আড্ডাখানা
                        পানপাত্র পূর্ণিমা চাঁদ
                        চলছে চুমুক রাত বিরাত।
                     ৯। গাছের বোটায় ফুল
                        তোমার বোটায় কি
                        আড়ালে দেখছি আমি
                        তোমার মুচকি হাসি।
                     ১০। মৌমাছিরা ফুলের মধু খায়
                         গাছতলায় আমি
                         তোমার আশায়।
                     ১১।  তোমার চোখ সাগর
                         ডুবি বারবার
                         তবুও হয়না মরণ আমার।
                     ১২।  সারাদিন দুজনের
                         আড়ি আড়ি খেলা
                         রাত হলে স্বপ্ন দেখি
                         দুজনে একলা।
                      ১৩। রাত যুবতী হলে
                          যুবকেরা পেরেক মারে
                          চাঁদ ডুবে গেলে
                          আঁধার কোলাকুলি করে।
                       ১৪।পতিত আছি
                           মাথা তুলবো বলেই
                           একদিন মুখোমুখি হবোই।
                       ১৫।  মেঘ ডাকলে
                           তোমার মুখ আমার বুকে
                           বৃষ্টি নামলেই
                           আমার মুখ তোমার বুকে।
                        ১৬।বাইরে অঝোর বৃষ্টি
                            ভিতরে অধীর রমণী
                            পুরুষ ফিরে এলে
                            ঘরের ভিতর বৃষ্টি।

                        ১৭।পাখিদুটো চুমো খাচ্ছে
                            পাহাড়ের গায় জোছনা
                            রমণীর ঠোট কাঁপছে।
                         ১৮।ছোট্ট একটু জমি
                             বৃষ্টি হলেই ফুল ফুটবে
                             ফসল হবে।
                         ১৯।রাজার ঝুলিতে সম্পদ
                             ভিখেরীর ঝুলিতে রসদ
                             কবির ঝুলিতে প্রাণ।
                         ২০।পুরুষের পোষাক নেই
                             বৃষ্টি নামে
                             নারী পোষাক খুললেই
                             ফুল ফোটে।
                          ২১। আকাংখা বুলবুলাইয়া
                              ঢুকে পড়লে
                              বের হবার পথ নেই।
                          ২২।  বিচ্ছিন্ন হও
                              অচেনা ধারনা থেকে
                              বাস করবো তোমার শরীরের
                              মাতাল গুহায়।
                           ২৩। ভালবাসবো মাতাল
                               শুয়রের মতো
                               খাবলে খাবো
                               পিছু পিছু ঘুরবো

                              রাত হলে তুমি শুয়ে পড়বে

                                
                               
                            ২৪।ঠোটে পান করে
                               কুমারী মাতাল
                               চোখে পান করে
                               বুড়ো বেহাল।
                            ২৫। বাসি হলে লোকে
                                পোষাক বদলায়
                                বাসি হলে কবি
                                মন বদলায়।
                            ২৬।নবীরা ঈশ্বরের কথা বলে
                                কবিরা মানুষের কথা
                                ঈশ্বর মানুষকে ভালবাসে।
                            ২৭। তোমার অধৈর্য উরু
                                অপেক্ষা করে আমার
                                জিনসের প্যান্টে তোমার
                                শরীর কামড়ায়।

মন্তব্য দিন

কোন মন্তব্য নেই এখনও

Comments RSS TrackBack Identifier URI

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s