ঈশ্বরের কবি

                 ঈশ্বরের কবি আমি
                 আমার ভিতরে সদা কথা বলে
                 হাজারো সৃষ্টি,
                 খেলা করে
                 গান গায় গুনগুন
                 আমি কথা বলি সকল সৃষ্টির।

                 কথা বলি
                 চোর ডাকাত গুন্ডা বদমাশ লুচ্ছা
                 মাতাল বেশ্যার
                 হাজারো দালাল ফড়িয়ার
                 ভন্ড মিথ্যাবাদী ধর্মচোরের
                 কথা বলি যুদ্ধবাজ শকুনীর
                 খাবলে খায় স্বদেশের মানচিত্র, সভ্যতা
                 বোনের মায়ের ভাইয়ের রক্ত
                 কামান দাগায় গোলাপ বাগানে
                 প্রেমিকার শরীরে।

                 কথা বলি
                 ধনী গরীব ভিখেরী দিনমুজুর অন্ধমাজুর
                 দাঁতাল রাজনীতিক ভন্ড দেশপ্রেমিক
                 ক্ষমতার চামচা বুদ্ধিজীবির
                 যারা গেজেট জারী করে
                 হাসিকান্না ভালবাসা প্রেম
                 মায়ের মমতা বোনের বায়না
                 ইন্চিগজ মেপে হিসাব রাখে
                 যারা দিনে ঘুষ খায় রাতে মাল টানে
                 ফাঁক ফোকরে কবি সাজে
                 স্বভাবে সারমেয় সুরতে মানুষ
                 অলিতে গলিতে অফিসে আদালতে
                 মন্রীপাড়ায় উত্তরে দক্ষিণে
                 লেহন করে যাবতীয় হাতপা
                 অন্ধকারে শরীরের সকল গুহা।
                 কথা বলি ধর্ষক ধর্ষিতের,
                 অভাবের তাড়নায়
                 লান্ছিতা কুমারীর,বালক বেশ্যার
                 ভেংগে যাওয়া প্রিয় সংসারের
                 সমকামী নারী পুরুষ, শিল্পী-কবি নট-নটি
                 গায়ক-গায়িকার।

                 কথা বলি অবিনাশী প্রেমের
                 লাইলীমজনু শিরীফরহাদ রাধাকৃষ্ণ
                 চন্ডিদাস রজকিনী
                 মনসুর হাল্লাজ শামস-রুমী হাফিজ গালিব
                 সা’দী রবীন্দ্র-নজরুলের,
                 কাশ্মীরি সুন্দরীর
                 পাহাড়ি ঝরনা,সবুজ পাহাড়
                 নদীর কলতান সাগরের অবিরাম কান্নার।
                 যাবতীয় ধর্মমাতাল ধর্মদ্রোহী
                 বিভ্রান্ত অবিশ্বাসী অবিবেকী
                 চক্রান্ত করে মানুষ-প্রকৃতির বিরুদ্ধে
                 জয়গাণ করে ঠুটো জগন্নাথ জাতিসংঘের।
                 অবিরাম কথা বলি
                 কাবুল বসরার রাস্তায় পড়ে থাকা
                 বেআব্রু প্রাণহীন আয়েশার
                 পাশে ক্রন্দনরত দুধের শিশু
                 গুয়ানতানামো আবুগারীবে লাণ্ছিত নির্যাতিত
                 অপমানিত মানবতার।

                 প্রতিদিন প্রতিরাতে প্রতিক্ষনে
                 ঈশ্বরের দূত আসে
                 ডাক দিয়ে যায়
                 উঠো জাগো শিরদাঁড়া সোজা করো
                 কাগজ কলম ধরো
                 আকাশের ওপারে অদৃশ্য দেখো
                 সাত আসমানে লেখা প্রভুর বাণী পড়ো
                 আর লেখো লেখো লেখো
                 তুমিই আজ ঈশ্বরের কবি।

                 আমি কথা বলেছি বলছি বলবো
                 যতদিন প্রভুর নির্দেশ জারী থাকে
                 জগতে গ্রহ নক্ষত্রে
                 লাখো কোটি অজানা সৃষ্টিতে
                 আর আমাতে।
                 আমি অবিরাম কথা বলবো
                 লাশরীর হয়েও লোক লোকান্তরে
                 সকল লোকে কথা বলবো
                 সৃষ্টির কথা বলবো
                 তোমার কথা বলবো
                 শুধু তোমার কথা বলবো।
                

                 ৮ই মার্চ আমার জন্মদিনের উপহার আমাকে

               �

Advertisements

মন্তব্য দিন

কোন মন্তব্য নেই এখনও

Comments RSS TrackBack Identifier URI

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s