ভাষা

দাঁত উঠলে মুখ ফুটলে

হাটি হাটি পা তুললে

হাত ধরে সামনে ছুটলে

মা বলে মা মা

বাবা বলে বা বা।

মা মা বা বা মা

বুক ভরা আশা

মায়ের ভাষা বাবার ভাষা।

এই ভাষাতেই মরণ

এই ভাষাতেই জীবন।

Advertisements

গালিব

 ১।

তোমাকে জানাই বন্ধু এ বুকের ব্যথা

আমি যাকে ভালবাসি সে লুকিয়ে থাকে

বুকের ভিতর।কেমনে পশিব বন্ধু সেথা।

২।

পাথর এতই শক্ত যে সে কাঁদতে জানেনা

বেদনা গভীর হলে সে পাথরও কাঁদবে গালিব।

৩।

বিচ্ছেদ রজনীর কথা কাকে বলবো বলবো তুমিই বলো

মনে হয় এই বান্দাহর জন্যে মরণ অনেক ভালো।

৪।

যাদের জানাজার সময় ঠিক হয়ে আছে

তারা এখনও সুখের ঘুমের কথা ভাবছে।

৫।

কাবায় গেলে কিভাবে এ মুখ দেখাবে গালিব বলো

তুমি এতই বেশরম যে কাবার কথা ভাবতে পারলে।

৬।

মৃত্যুর পর আমার বদনাম আরও বেড়ে গেছে

ভালো হতো যদি ডুবে মরতাম,কোন সৌধ হতোনা

লোকে আমায় ভুলে যতো।

৭।

জামশেদের হীরার পেয়ালার চেয়ে

আমার মাটির পেয়ালা অনেক ভাল

ভেংগে গেলে বাজারে হাজার আছে।

স্মৃতি পুড়ে গেলে

                স্মৃতিগুলো পুড়ে গেছে কালরাত
                শুধু পড়ে আছে কিছু ছাই
                এখানে সেখানে।
                লোবানের সুবাস থেকে উঠে এলো
                কাফনে ঢাকা এক লাশ
                লাশটি অবিকল জীবিত আমার মতো।
                প্রশ্ন করলো
                কে আসল?
                আমার কোন জবাব ছিলনা
                লোবানের সুবাসে লাশটি মিশে গেলো
                আমার কিছুই বলার ছিলনা
                এখন আমি ছাড়া অজানা আমি ঘুরিফিরি
                স্মৃতির ছাইয়ের মাঝে।
                            

           �

আমরা

আমরা একসাথে থাকবো বলে

এক থেকে অনেক হয়েছি

অনেক গল্প জমা আছে

সময় হয়নি বলে বলা হয়নি।

আমরা এক সাথে থাকবো বলে

এক থেকে অনেক হয়েছি

আমাদের পথগুলো একা থাকে

একা একা চলে

আমরা এক সাথে চলবো বলে

বহু পথ ছেড়ে

একটি পথের দিশা চেয়েছি।

তবুও পথ শেষ হয়না

আমরা এখন একা একা স্বপ্ন দেখি

অনেক স্বপ্ন জমা আছে

আমরা এক সাথে থাকবো বলে

সময় গুলো জমে থাকে

আমরা একাই রয়ে গেলাম

সকলে মিলে।

তুমি

তুমি তৃষ্ণার্ত আমিও

কামাতুর বৃষ্টি নামছে

মাটির গভীরে

তুমি পোয়াতি হবে

তবুও তৃষ্ণার শেষ নেই

আমি মাটি

তুমি বৃষ্টি

আমি বীজ

তুমি ফসল।

২।

তুমি বিচ্ছিন্ন হবে

মেঘের পালকীতে

তুমি চলে যাবে।

তুমি আগুন হবে

সবকিছু পুড়িয়ে যাবে

তুমি আলাদা হবে

এভাবেই

আগামীকাল

আরও আগামীকাল

আরও আরও।

মানুষ ভাবে

আকাশটা যদি ভেঙ্গে পড়ে মাথার উপর

মানুষ শুধু এভাবেই ভাবে

কেন ভাবে মানুষ তা জানেনা।

মানুষ এ রকমই

মানুষ যা নয় তাই ভাবে

যদি হিমালয়টা ডুবে যায়

সাগরটা পাহাড় হয়ে যায়

মানুষ কেন এমন ভাবে

কে তাকে ভাবায়

সে জানেনা।

প্রিয়তমা

তুমি কখনও তা দেখোনি

তোমার দিনমান কাটে

তেল নুন ডালচাল নিয়ে

এভাবেই তুমি ধাবিত হও দিনের পেছনে

বসন ভূসনে তুমি বেশী করে বাঁচো

তুমি আকাশকে মাটিতে

বিছানা পাততে দেখোনি

পাহাড় ঠোঁট নেড়ে নেড়ে কথা বলে

সূর্য পালিয়ে বেড়ায়

চাঁদ বিরহে কাঁদের

এসব তুমি খখনও দেখোনি

তোমার চোখে শুধু ডালচাল

পুরো জীবনটাই

দা আর কুমড়ো

তুমি ছিলে সত্যিই একটি কবিতা

আমি একাই শুধু

তোমাকে পড়েছি।

৯/১২/০৭